পরিসংখ্যানের আলোয়: কে জিতবে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ?

উৎপল শুভ্র নির্বাচিত পাঠকের লেখা

পরিসংখ্যানের আলোয়: কে জিতবে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ?

আগামীকাল মাঠে গড়াচ্ছে ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের প্রথম আসরের ফাইনাল। ভারত নাকি নিউজিল্যান্ড, কোহলি নাকি উইলিয়ামসন--বিশ্ব ক্রিকেট সরগরম এই আলোচনাতেই। উৎপলশুভ্রডটকমের এই পাঠক ফাইনালের আগে দু`দলকে ফেলতে চাইলেন পরিসংখ্যানের আতশকাচের নিচে। দু`দলের মুখোমুখি লড়াইয়ের খতিয়ান, ইংল্যান্ডের মাটিতে কোন দলের পারফরম্যান্স কেমন...সবই তুলে এনেছেন তিনি।

ক্রিকেটের সবচেয়ে অভিজাত ফরম্যাট হলো টেস্ট ৷ সেই ১৮৮৭ সাল থেকে শুরু হওয়া এই অভিজাত খেলাটির অভিজাত ফরম্যাটে টেস্ট স্ট্যাটাস পাওয়া দলগুলো সাধারণত নিজেদের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় সিরিজই খেলে আসছে। এই দীর্ঘ সময়ের পরিক্রমায় ক্রিকেটে যুক্ত হয়েছে ওয়ানডে এবং টি-২০ নামের দুটি সংক্ষিপ্ত সংস্করণ। এই দুটির দাপটে টেস্ট ক্রিকেটের জৌলুসটাই হারিয়ে যেতে শুরু করেছিল৷ কিন্তু হারানো জৌলুস ফিরিয়ে আনতে সিদ্ধান্ত নেয়া হয় টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের। ২০১০ সালে এ প্রতিযোগিতা আয়োজনের চিন্তাধারা অনুমোদনের প্রায় এক দশক পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের পরিকল্পনা বাস্তব রূপ লাভ করে। ২০১৩ ও ২০১৭ সালে দুইবার প্রতিযোগিতা আয়োজনের চেষ্টা চালানো হলেও তা বাতিল করতে হয়। ২৯ জুলাই ২০১৯ তারিখে আইসিসি কর্তৃপক্ষ আনুষ্ঠানিকভাবে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের উদ্বোধন করে। জানানো হয়, এখন থেকে টেস্টেও ওয়ানডে আর টি-২০র মতো নাম্বারওয়ালা জার্সিই পরতে হবে।

প্রথমবারের মতো আয়োজিত এই টুর্নামেন্টের প্রথম সিজন অর্থাৎ ২০১৯-২১ চক্রে ৯টি দল ৫৯টি ম্যাচ খেলেছে৷ পয়েন্ট তালিকার শীর্ষ দুই দল হিসেবে ভারত এবং নিউজিল্যান্ড ফাইনাল খেলবে। ফাইনালটি  আগামী ১৮ জুন থেকে মাঠে গড়াবে সাউদাম্পটনের অ্যাজিয়াস বোওলে।

শেষ হাসি হাসবেন কে? ছবি: ক্রিকইনফো

ফাইনালিস্ট নির্ধারিত হয়ে যাওয়ার পরেই শুরু হয়েছে আলোচনা, কোন দল প্রথম টেস্ট বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা জিতবে? পরপর দুইটি ওয়ানডে বিশ্বকাপে রানার্সআপ হওয়া নিউজিল্যান্ড কি এই শিরোপা জিতে নিজেদের আক্ষেপ কিছুটা ঘোচাতে পারবে? নাকি দুর্দান্ত ফর্মে থাকা ভারত তাদের সক্ষমতার জানান দেবে আরেক বার? সব ক্রিকেটপ্রেমীদের আলোচনার বিষয় এন এটাই। তো এই আলোচনাই একটু এগোনো যাক দু'দলের টেস্ট পরিসংখ্যান দিয়ে:

★ ভারত এবং নিউজিল্যান্ডের মধ্যে এখনো পর্যন্ত নিরপেক্ষ ভেন্যুতে কোনো টেস্ট ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়নি। টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালটিই হতে যাচ্ছে নিরপেক্ষ ভেন্যুতে তাদের মধ্যে প্রথম টেস্ট ম্যাচ।

★ এখন পর্যন্ত ভারত এবং নিউজিল্যান্ড টেস্টে মুখোমুখি হয়েছে ৫৯ বার৷ যার মধ্যে ভারত জিতেছে ২১টি, জয়ের শতকরা হার ৩৫.৫। অন্যদিকে নিউজিল্যান্ড জিতেছে ১২টি, অর্থাৎ ২০.৩৩ শতাংশ ম্যাচ। ড্র হয়েছে বাকি ২৬ ম্যাচ।

★ ভারতের বিপক্ষে নিউজিল্যান্ড নিজেদের দেশে টেস্ট খেলেছে ২৫টি। জয় আর ড্র সমান ১০টি করে।

★ ভারত নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে নিজেদের দেশে ম্যাচ খেলেছে ৩৪টি, ভারতেরও জয় আর ড্রয়ের সংখ্যা সমান, ১৬টি করে।

★ এই ফাইনালটি যেহেতু হবে ইংল্যান্ডে, এক নজরে দেখে নেওয়া যাক ইংল্যান্ডে দু'দলের পারফরম্যান্স। ভারত ইংল্যান্ডের মাঠে এখন পর্যন্ত খেলেছে ৬২টি টেস্ট। তাতে জয় পেয়েছে মাত্র ১১.২৯ শতাংশ ম্যাচে (৭), ২১ ড্রয়ের বিপরীতে হেরেছে ৩৪ টেস্টে। নিউজিল্যান্ডের পরিসংখ্যানও ভারতের মতোই করুণ। ৫৫ ম্যাচ খেলে জয় মাত্র ৫ টেস্টে, ড্র ২০ টেস্টে। যার মানে ৩০টি টেস্টেই হারতে হয়েছে।

★ যে মাঠে ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে, সাউথাম্পটনের সেই অ্যাজিয়াস বোওল স্টেডিয়ামে নিউজিল্যান্ড এর আগে কখনো টেস্ট খেলেনি। অন্যদিকে ভারত দুটি টেস্ট খেলে দুটিই হেরেছে।

সাউদাম্পটনের এ মাঠেই গড়াবে ফাইনাল। ছবি: রয়টার্স

সবশেষে আমরা বলতে পারি, ইংল্যান্ডের মাটিতে দু'দলের কেউই ভালো সুবিধা করতে পারেনি অতীতে। তাই এখানে দুই দলই ফেবারিট। তবে এটাও বলে রাখা ভালো, অতীতের যে রেকর্ডের কথা বলা হচ্ছে, তা তো স্বাগতিক ইংল্যান্ড দলের বিপক্ষে। এখানে তো স্বাগতিক বলে কিছু নেই। 

এসব ছাড়িয়েও অনেক খেলোয়াড়দের ব্যক্তিগত প্রতিযোগিতাও থাকবে। যেমন দুই অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন ও বিরাট কোহলি দুইজনের মাঠের পারফরম্যান্স এবং ক্যাপ্টেন হিসেবে স্নায়ুর লড়াইও উপভোগ্য হবে--এমনটা ক্রিকেট ভক্তরা আশা করতেই পারে। তবে কাগজে-কলমে যে বা যারাই এগিয়ে থাকুক, খেলাটা তো হবে মাঠেই৷ মাঠে যারা পারফরম্যান্স এবং পরিকল্পনা সুচারুভাবে বাস্তবায়ন করতে পারবে, তারাই শেষ হাসি হাসবে৷

একটি দারুণ লড়াইয়ের অপেক্ষাতেই থাকছি।

শেয়ার করুনঃ
আপনার মন্তব্য
আরও পড়ুন