ফাইনালের আগে কী বললেন মেসি?

উৎপলশুভ্রডটকম

১০ জুলাই ২০২১

ফাইনালের আগে কী বললেন মেসি?

লিওনেল মেসি। ছবি: এএফপি

আরও একবার ফাইনালে উঠলেন মেসি, আরও একবার জানালেন শিরোপা জেতার আকাঙ্ক্ষার কথা। ফাইনালের আগে মেসি কথা বললেন দলের অবস্থা নিয়েও।

'আর্জেন্টিনার হয়ে একটা ট্রফি জিততে চাই।'

সেই ২০০৬ বিশ্বকাপ থেকে শুরু, এরপর গুণে গুণে খেলে ফেলেছেন পাঁচটা কোপা আর চারটা বিশ্বকাপ। কিন্তু নয়টা আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট খেলে ফেললেও মেসিকে এখনো আউড়ে যেতে হচ্ছে ওই এক বাক্যই, 'কিছু একটা জিততে চাই আর্জেন্টিনার হয়ে।'

কথাটা মেসি বললেন আরও একবার। এবার কোপা আমেরিকার ফাইনালে উঠে। এখন পর্যন্ত দুর্দান্ত একটা টুর্নামেন্টই কাটিয়েছেন, ছয় ম্যাচ খেলে চারটিতেই হয়েছেন ম্যান অব দ্য ম্যাচ। করেছেন চার গোল, সঙ্গে গোলে সহায়তাও করেছেন পাঁচবার। গোলে সহায়তা করেছেন কলম্বিয়ার বিপক্ষে সেমিফাইনালেও, যদিও ম্যাচটা জিততে হয়েছে টাইব্রেকারে।

সেমিফাইনালে কলম্বিয়ার বিপক্ষে জয়ের পর মেসি কথা বলেছেন সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে, যার বেশির ভাগ জুড়েই ছিল ফাইনাল নিয়ে তাঁর ভাবনা। উৎপলশুভ্রডটকম-এর পাঠকদের জন্য তা তুলে দেওয়া হলো মেসির জবানিতেই:

কলম্বিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ নিয়ে

কঠিন একটা ম্যাচ ছিল। কঠিন ছিল কারণ ম্যাচে বেশ কিছু সময় এসেছে, আমরা ওদের পায়ে বল রাখিতে দিয়েছি আর ওরা আমাদের আক্রমণ করেছে। তবে শেষ পর্যন্ত যে ফলটা এসেছে, সেটা আমাদের প্রাপ্য ছিল।

গোলবারের নিচে মার্তিনেজ দুর্দান্ত ছিল। অবশ্য ওকে তো আমরা জানি, জানতাম ও শট আটকে দেবে। এই আস্থাটা আমাদের ছিলই।

ছবি: গেটি ইমেজেস

ফাইনালে নেইমারের আর্জেন্টিনাকে চাওয়া নিয়ে

আমরা দু'জনই ফাইনালে। ও কেন কথাটা বলেছে, সেটা আমি জানি। ও আমার বন্ধু তো, এ জন্যে ও-ও আমাকে ওখানে (ফাইনালে) দেখতে চাইছিল। খুবই রোমাঞ্চকর একটা ম্যাচ হবে বলে আশা করছি। ফাইনালে ওঠাটাই আমাদের প্রাথমিক লক্ষ্য ছিল, সেটা আমরা অর্জন করেছি। টুর্নামেন্টের শেষ পর্যন্ত থাকতে পারলাম বলে গর্বিত। আর এখন শিরোপা জয়ের লক্ষ্যে নামব বলে আরও বেশি উদ্দীপনা বোধ করছি।

ফাইনালে উঠে দলের অনুভূতি

আমরা সবাই খুব খুশি। জাতীয় দলের হয়ে একটা শিরোপা জেতা তো আমার পরম আকাঙ্ক্ষার। শেষমেশ শিরোপা জিতব কি জিতব না জানি না, তবে এই কঠিন সময়ে পরিবার থেকে ৪৫ দিন দূরে থাকলেও সময়টা আমি উপভোগই করেছি।

আমাদের দলে এমন কিছু মানুষও আছেন, যারা তাদের সন্তানের জন্মের সময় উপস্থিত থাকতে পারেননি। জীবনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ক্ষণটাই তাদের স্যাক্রিফাইস করতে হয়েছে। তবে এই ত্যাগগুলোই আমাদের দল হিসেবে আমাদের আরও শক্তিশালী করেছে, আমাদের এখানে এনে দাঁড় করিয়েছে।

শেয়ার করুনঃ
আপনার মন্তব্য
আরও পড়ুন
×