উৎপল শুভ্র নির্বাচিত পাঠকের লেখা

তবুও এই ম্যাচটা অনন্য

রিফাত বিন জামাল

৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

তবুও এই ম্যাচটা অনন্য

আরেকটি জয়, রেকর্ড বইয়ে আরও আঁকিবুকি

বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ছিল রেকর্ডের ঘনঘটা। শেষ বলে নিষ্পত্তি হওয়া দ্বিতীয় ম্যাচের দিকে ফিরে তাকিয়েও সংখ্যায় সংখ্যায় বলার মতো অনেক কিছুই খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম জয়ের জন্য অপেক্ষা করতে হয়েছে সবচেয়ে বেশি। তবে প্রথম জয়ের পর দ্বিতীয় জয় দেখতে এর চাইতে কম অপেক্ষা সম্ভব ছিল না। বাংলাদেশ অবশ্য প্রথম জয়ের পরের ম্যাচেই দ্বিতীয় জয়েরও দেখা পেয়ে গিয়েছিল আয়ারল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, পাকিস্তানের সঙ্গেও। আজ হয়ে গেল কিউইদের বিপক্ষেও। শেষ বল পর্যন্ত গড়ানো আজকের সেই ম্যাচটাই ঘুরে আসা যাক সংখ্যায় সংখ্যায়…

৬৫*- শেষ বলটায় স্ট্রাইকে ছিলেন কিউই অধিনায়ক টম ল্যাথাম। ‘লিডিং ফ্রম দ্য ফ্রন্ট’ কথাটা পুরোপুরি যথার্থতা প্রমাণ করে অবশ্য ম্যাচটা জিতে বেরোতে পারেননি। ৬৫ রানে অপরাজিত থেকেই তাঁকে মাঠ ছাড়তে হয়েছে পরাজিত অধিনায়ক হিসেবে। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে রান তাড়া করতে নেমে ৬০ রানের বেশি করে অপরাজিত থেকেও হারতে হয়েছে আরও ১৫ জন ব্যাটসম্যানকে। ল্যাথামেরই স্বদেশি জ্যাকব ওরামকে হারতে হয়েছিল ৬৬ রানে অপরাজিত থেকেও। তবে বাংলাদেশের বিপক্ষে রান তাড়ায় ৫০ রানের বেশি করে অপরাজিত থেকেও কেউ হারলেন এই প্রথম।টম ল্যাথাম: বাংলাদেশের বিপক্ষে অপরাজিত হাফ সেঞ্চুরি করার পর পরাজয়ের বিস্বাদ নিতে হয়নি আর কাউকে। ছবি: বিসিবি

- বেন সিয়ার্স অভিষেকে আজ বোলিং করেছেন মাত্র এক ওভার। অবশ্য এমনটা যে তাঁর সাথেই শুধু হয়েছে, তা কিন্ত নয়। নিউজিল্যান্ডের হয়ে টি-টোয়েন্টিতে অভিষেক হয়েছে কোনো পেসারের, অথচ ছয় বলের বেশি করতে পারেননি, এমন আছেন আরও পাঁচজন।

- গত এক বছরে মিরপুরে পাওয়ার প্লে পার করা ওপেনিং জুটির সংখ্যা মাত্র এক। লিটন-নাঈমের আজকের সেই জুটি বলের হিসাবে যেমন সবচেয়ে বড় (৫৭ বল), রানের হিসাবেও সর্বোচ্চ। এটি বাদে এ সময়ে পঞ্চাশের বেশি রানের জুটি আর একটিও নেই।

- লিটন-নাঈমের আজকের ৫৯ তাঁদের রানের তৃতীয় পঞ্চাশোর্ধ্ব জুটি, লেগেছে ৮ ইনিংস। লিটন-তামিমেরও পঞ্চাশের বেশি রানের পার্টনারশিপ আছে ৩টি, ১৩ ইনিংসে। ওপেনিংয়ে বাংলাদেশের ৫০ পেরোনো জুটি আছে আরও সাতটি, তবে সবগুলোই গড়েছে ভিন্ন ভিন্ন জুটি৷

- শেখ মাহেদী হাসানের ইকোনমি রেট। দ্বিতীয় ইনিংসে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে যা সবচেয়ে কম। আজকের ম্যাচে ৪ ওভার বল করে মাহেদী রান দিয়েছেন ১২। দ্বিতীয় ইনিংসে ২৪ বল করে এর চেয়েও কম রান দিয়েছেন বাংলাদেশের আর তিন বোলার। মোস্তাফিজ দুবার, রাজ্জাক ও সাকিব একবার। সবাই দিয়েছেন ৯ রান করে।আগের চার ম্যাচ মিলিয়ে করেছিলেন ১১ রান, আজ এক ম্যাচেই এর তিন গুণ। লিটন দাস। ছবি: বিসিবি

৩৩- লিটন আগের চার ইনিংসে মিলিয়ে করেছিলেন ১১ রান, আজ করলেন তাঁর তিন গুণ। এই ৩৩-ই নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে লিটনের সর্বোচ্চ ইনিংস।

- বাংলাদেশ জিতেছে ৪ রানে। রানের ব্যবধানে বাংলাদেশের ছোট জয়গুলোর তালিকায় যা আছে দ্বিতীয় স্থানে। ২০১২ সালে বেলফাস্টে আয়ারল্যান্ডের সঙ্গে বাংলাদেশ জিতেছিল মাত্র ১ রানেই।

৬.৯৫- শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে আজকের এই ম্যাচে দুই ইনিংস মিলিয়ে রান রেট ৬.৯৫। পুরো ম্যাচে আজ রান হয়েছে ২৭৮। মিরপুর স্টেডিয়ামে গত সাত ম্যাচের কোনোটিতেই এর চাইতে বেশি রান হয়নি। ওভারপ্রতি রানও উঠেছে সবচেয়ে বেশি।

আরও পড়ুন:
 টম ল্যাথামকে কি ফোন করেছেন তাঁর বাবা?

শেয়ার করুনঃ
আপনার মন্তব্য
আরও পড়ুন