বিশ্বকাপ

শোয়েব নায়ক হতে পারেন, তাই বলে উলমার?

গতির ঝড় তুলে ১৯৯৯ বিশ্বকাপের আলোড়নের নাম হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন শোয়েব আখতার। সেই বিশ্বকাপের সবচেয়ে আলোচিত চরিত্র হিসাবে তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন যিনি, তিনি মাঠেই নামেননি। কিন্তু এমন কাণ্ড করেছিলেন, যা রীতিমতো হইচই ফেলে দিয়েছিল বিশ্বকাপে। দক্ষিণ আফ্রিকার দুই ক্রিকেটার অধিনায়ক হানসি ক্রনিয়ে ও অ্যালান ডোনাল্ডের কানে হিয়ারিং এইডের মতো দেখতে ছোট্ট একটা মাইক্রোফোন বসিয়ে পাঠিয়ে দিয়েছিলেন মাঠে, যাতে প্রয়োজনে তিনি প্যাভিলিয়নে বসেই বুদ্ধি-পরামর্শ দিতে পারেন। বিশ্বকাপে সব দলের মাঠে নামা শেষ হওয়ার পর পর্যালোচনা লিখতে গিয়ে তাই শোয়েবের সঙ্গে নায়ক বলে মানতে হয়েছিল উলমারকেও।

×